কাপাসিয়ার হত্যা

কাপাসিয়া উপজেলার টোক নয়ন বাজার সংলগ্ন ভূঁইয়া বাড়ির পুকুর পাড়ে ইদ্রিস আলী (৩০) নামের একজন খুন হন। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে ।

ইদ্রিস আলি

নিহত ইদ্রিস আলী (৩০) ওই এলাকার সালোয়ার টেকির মফিজ উদ্দিনের ছেলে। টোক পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ক্যাম্প ইনচার্জ এসআই সিদ্দিকুর রহমান ভাওয়াল বার্তা প্রতিনিধিকে বলেন, লাশ পড়ে থাকার খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যার কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে বলেন কারণ এখনো জানা যায়নি। তিনি আরও বলেন, ইদ্রিসের মাথায় ও গলায় কোপের চিহ্ন এবং বুকে গভীর ক্ষতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, গাজীপুর মর্গে পাঠানো হবে।

নিহতের স্ত্রী সুমাইয়া (১৯) বলেন, তার স্বামী সোমবার রাত ১২টার দিকে এলাকায় সাপ ধরা হচ্ছে এমন খবর পেয়ে বাইরে বের হন। গভীর রাত পর্যন্ত বাসায় না ফেরায় রাত আড়াইটার পর কল দিলে মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

ইদ্রিস আলী হত্যার মোটিভ সম্পর্কে জানতে চাইলে এলাকাবাসী জানান, জমিজমা বিষয়ক সমস্যার কারনে হত্যা ঘটনা ঘটতে পারে । কে বা কারা হত্যাকাণ্ডের পিছনে থাকতে পারে জানতে চাইলে কেউই মুখ খুলেন নি। তারা সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীদের শাস্তি দাবী করেন।

কাপাসিয়া প্রতিনিধি/ ইমরান হোসাইন

 

Advertisements