CNG kapasia

গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী সিএনজির ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য চলছে। করোনা মহামারির শুরু থেকে স্বাস্থ্যবিধিসহ বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে খেয়াল-খুশি মতো ভাড়া আদায় করছেন সিএনজি চালকরা। অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের প্রতিবাদ করলে চালকদের কাছ থেকে নানা আপত্তিকর কথা শুনতে হয় বলে অভিযোগ যাত্রীদের। এ নিয়ে যাত্রীদের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
ভুক্তভোগী যাত্রীদের অভিযোগ, কাপাসিয়া সদর থেকে রাজবাড়ির জনপ্রতি ৭০ টাকার ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ১০০ টাকা, চাঁদপুর থেকে রাজবাড়ির ৬০ টাকার ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ৮০ টাকা, কাপাসিয়া থেকে রাজেন্দ্রপুরের ৫০ টাকার ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ৭০ টাকা, রানীগঞ্জ থেকে গাজীপুরের ৮০ টাকার ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ১০০ টাকা। এভাবে প্রায় প্রতিটি সিএনজি স্ট্যান্ড থেকে চালকরা সম্মিলিতভাবে নিজেদের ইচ্ছামতো ভাড়া বাড়িয়ে নিয়েছে।
কাপাসিয়া-গাজীপুর রুটের সিএনজি চালক সোহেল বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মানার কারণে সিএনজির পেছনে ৩ জন এবং সামনে ১ জনসহ মোট ৪ জন যাত্রী নেওয়া হয়। ১ জন যাত্রী কম নেওয়ার কারণে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে।
উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের মিতুল হাসান নামে এক যাত্রী বলেন, চালকরা ১ জন কম নিয়ে এটা আবার কেমন স্বাস্থ্যবিধি মানছে। যাত্রী হয়রানি ছাড়া এ আর কিছু নয়। স্বাস্থ্যবিধি মানার অহেতুক অজুহাতে ভাড়া বাড়ানোর প্রতিবাদ করলে তাদের সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয়।
এ বিষয়ে কাপাসিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইসমত আরা বলেন, যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। এ ব্যাপারে যাত্রীদের আরও বেশি সচেতন হতে হবে।