৫ টাকার জন্য হত্যা

সাভারের আশুলিয়ায় অটোরিকশার ভাড়া নিয়ে যাত্রী ও চালকের মধ্যে দ্বন্দ্বে হাতাহাতির এক পর্যায়ে যাত্রীর লাথিতে মারা গেছেন আলিম হোসেন (৪০) নামের এক রিকশা চালক। অভিযুক্ত ফজলুল হককে (৪১) স্থানীয়রা গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিয়েছে।

সোমবার সকাল পৌণে ৮টার দিকে আশুলিয়ার নরসিংহপুর-কাশিমপুর আঞ্চলিক সড়কের ইউসুফ মার্কেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত অটোচালক আব্দুল আলীম (৪০) গাজীপুর মহানগরীর কাশিমপুর বাগবাড়ি এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে। সে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা চালাতো।

আটককৃত ফজলুল হক শেরপুরের নালিতাবাড়ি থানার কাকড়কান্ডি গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে। সে গাজীপুর মহানগরীর কাশিমপুর স্বরোপাইতলী এলাকার বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাগবাড়ি মাদ্রাসা বাজার থেকে অটোরিকশায় উঠেন ফজলুল হক। তিনি ইউসুফ মার্কেট বাসস্ট্যান্ডে নামেন। এসময় অটোরিকশা থেকে নেমে পাঁচ টাকা ভাড়া দিতে চাইলে চালক না নিয়ে দশ টাকা চান। পরে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে ফজলুল হক ওই চালককে লাথি মারলে রিকশাচালক মাঠিতে লুটিয়ে পড়ে এবং অটোর নিচে চাঁপা পড়ে মাথায় গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে স্থানীয়রা ফজলুলকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

আশুলিয়া থানার এসআই হাচিব সিকদার জানান, ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার এবং অভিযুক্তকে আটক করে থানায় নেয়া হয়েছে। ভাড়ার টাকা নিয়ে এ ঘটেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

Advertisements