২১ কোটি ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা হয়েছে

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে দেশের আপামর জনগণের জন্য ২১ কোটি ডোজ ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সময়মতো পেলে বাংলাদেশ কোনো দেশ থেকে ভ্যাকসিনে পিছিয়ে থাকবে না। যথাসময়ে ৮০ শতাংশ জনগোষ্ঠীকে টিকার আওতায় আনা যাবে।

তিনি বলেন, ২১ কোটি ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা হয়েছে। আগামী বছর পর্যন্ত সেগুলো পর্যায়ক্রমে দেশে আসবে। এখন আমাদের হাতে আছে ৩ কোটি চায়নার টিকা, ৭ কোটি কোভ্যাক্সের টিকা, ১ কোটি রাশিয়ার টিকা, ৩ কোটি অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা ও ৭ কোটি জনসনের টিকা আসবে। এসব ভ্যাকসিন পেলে তাহলে ৮০ ভাগ মানুষকে দেওয়া যাবে।

শনিবার (২৪ জুলাই) বিকালে কোভিড-১৯ সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি প্রতিরোধ, অক্সিজেন সংকট, হাসপাতালের সুযোগ-সুবিধা ও শয্যা সংখ্যা বৃদ্ধি শীর্ষক স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ এসোসিয়েশনের সদস্যভুক্ত প্রতিষ্ঠানের মতবিনিময় সভায় এক জুম মিটিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও জানান, এ পর্যন্ত ১ কোটি ২০ লাখের মতো মানুষ ভ্যাকসিন নিয়েছেন।

জাহিদ মালেক স্বপন আরও বলেন, আগস্টের মধ্যে দেশের ৪০টি হাসপাতালে ৪০টি অক্সিজেন জেনারেটর বসবে। যার কারণে আমাদের অক্সিজেনের কোনো সংকট হবে না।

Advertisements