শ্রীপুরে চতুর্থবারেও মেয়র আনিছুর

গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে চতুর্থবারও বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছুর রহমান (নৌকা)। তার নিকট প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী অ্যাড. কাজী খানের চেয়ে ১৩,৩৯০ ভোট বেশী পেয়ে নির্বাচিত হন তিনি। এছাড়া ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী ফরহাদ আহমেদ মোমতাজী (হাতপাখা) পেয়েছেন তিন হাজার ৭৬১ ভোট। স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহ আলম (জগ) পেয়েছেন তিন হাজার ৯২১ ভোট।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) রাতে রিটার্নিং ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী মো. ইস্তাফিজুল হক আকন্দ এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে বেসরকারিভাবে বিজয়ী কাউন্সিলরা হলেন-১ নম্বর ওয়ার্ডে দারা মন্ডল, ২ নম্বর ওয়ার্ডে মাসুদ প্রধান, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে আ. সাহিদ সরকার, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে কামরুল মন্ডল, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে রমিজ উদ্দিন, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে হাজী কামাল হোসেন, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে মো. হাবিবুল্লাহ, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে আলী আসগর ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে আমজাদ হোসেন।

এছাড়া সংরক্ষিত নারী কাউন্সিল হিসেবে বিজয়ী হয়েছেন ১, ২ ও ৩ ওয়ার্ডে নাজমা বেগ; ৪, ৫ ও ৬ ওয়ার্ডে বুলবুলি এবং ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে আফরোজা বেগম।

এদিকে গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচন দুই-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া সুষ্ঠুভাবে ভোট সম্পন্ন হয়েছে। ভোটকেন্দ্রের বুথে প্রবেশ ও এজেন্টদের সঙ্গে কথা বলার অভিযোগে স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী শাহ আলমকে (জগ) আটকের দেড় ঘণ্টা পর ছেড়ে দেওয়া হয়।

অন্যদিকে কেওয়া তমির উদ্দিন আলীম মাদ্রাসা (মাওনা চৌরাস্তা) কেন্দ্রে ভোট দিতে এসে লাইনে দাঁড়ানো অবস্থায় কেওয়া পশ্চিম খন্ড গ্রামের সোবাহান মুন্সীর ছেলে এমদাদা খলিফা (৭০) মৃত্যুবরণ করেন।

নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ ইস্তাফিজুল হক আকন্দ বলেন, দুপুর ২টার দিকে স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী শাহ আলমকে (জগ) আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা থানায় নিয়ে যান। ভোটকেন্দ্রের বুথে বুথে প্রবেশ ও এজেন্টদের সঙ্গে কথা বলার অভিযোগে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে ৩ নম্বর ওয়ার্ডের লোহাগাছ কেন্দ্র থেকে তাকে আটক করা হয়।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সামিয়া জানান, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে পরে স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী শাহ আলমকে থানা থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এছাড়া লাইনে দাঁড়ানো অবস্থায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে এমদাদ খলিফা (৭০) নামে এক ব্যক্তি মারা গেছেন বলেও জানান তিনি।