ওয়ানডে বোলিং র‍্যাংকিংয়ে চারে মিরাজ

বাংলাদেশের সাথে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ানডে সিরিজের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের বোলারদের তালিকায় বড় পরিবর্তন এসেছে, যেখানে সেরা দশে জায়গা পেয়েছেন বাংলাদেশের দুই বোলার।

এরই সঙ্গে ওডিআই র‍্যাংকিংয়েও অভাবনীয় উন্নতি হয়েছে টাইগার ক্রিকেটারদের। বিশেষ করে বোলিং র‍্যাংকিংয়ে সেরা দশে ঢুকে গেছেন দুই টাইগার বোলার।

বোলিং র‍্যাংকিংয়ের ১৩ নম্বরে থেকে সিরিজটি শুরু করেছিলেন ডানহাতি অফস্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ। তিন ম্যাচে ৭ উইকেট নেয়ার সুবাদে তিনি এগিয়েছেন ৯ ধাপ। বর্তমানে অবস্থান করছেন ক্যারিয়ার সেরা ৪ নম্বরে। এছাড়া ১১ ধাপ এগিয়ে ৮ নম্বরে উঠে এসেছেন বাঁহাতি পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। সিরিজে তার শিকার ছিল ৬ উইকেট।

সেরা দশে না এলেও মিরাজ-মোস্তাফিজের চেয়ে বড় লাফ দিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। নিজের প্রত্যাবর্তনী সিরিজে তিন ম্যাচে ৬ উইকেট নিয়ে তিনি এগিয়েছেন ১৫ ধাপ, বর্তমানে অবস্থান করছেন ১৩ নম্বরে। এছাড়া মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন তিন ধাপ এগিয়ে উঠেছেন ৪৩ নম্বরে।

বুধবার আইসিসির সবশেষ আপডেটে জানা গেছে এসব তথ্য। শুধু বোলিং র‍্যাংকিং নয়, ব্যাটিং র‍্যাংকিংয়েও উন্নতি হয়েছে টাইগারদের। অধিনায়ক তামিম ইকবাল এক ধাপ এগিয়ে ২২, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ পাঁচ এগিয়ে ৪৯ ও মুশফিকুর রহীম এক ধাপ এগিয়ে বর্তমানে অবস্থান করছেন ১৫ নম্বরে।

আইসিসি ওয়ানডে বোলিং র‍্যাংকিং

১/ ট্রেন্ট বোল্ট (নিউজিল্যান্ড)- ৭২২ রেটিং

২/ মুজিব উর রহমান (আফগানিস্তান) – ৭০৮ রেটিং

৩/ জাসপ্রিত বুমরাহ (ভারত) – ৭০০ রেটিং

৪/ মেহেদি হাসান মিরাজ (বাংলাদেশ) – ৬৯৪ রেটিং

৫/ ক্রিস ওকস (ইংল্যান্ড) – ৬৭৫ রেটিং

৬/ কাগিসো রাবাদা (দক্ষিণ আফ্রিকা) – ৬৬৫ রেটিং

৭/ জশ হ্যাজলউড (অস্ট্রেলিয়া) – ৬৬০ রেটিং

৮/ মোস্তাফিজুর রহমান (বাংলাদেশ) – ৬৫৮ রেটিং

৯/ মোহাম্মদ আমির (পাকিস্তান) – ৬৪৭ রেটিং
১০/ প্যাট কামিনস (অস্ট্রেলিয়া) – ৬৪৬ রেটিং